Facebook SDK

ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা কি? বাংলাদেশের ইন্সুরেন্স কোম্পানী সমূহের তালিকা।


বর্তমান বাজারে মানুষ নিজের জীবন নিয়ে অনেকটাই সজাগ, লোকেদের ইন্সুরেন্স ( Insurance) বা বীমার প্রতি আগ্রহ বেড়েই চলছে, এদের মধ্যো অনেকেই জানেনা ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা কি? 

ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা নিয়ে অনেকের ভূল ধারনা রয়েছে, যেমনঃ অনেকেই ভাবে বীমা হচ্ছে একধরনের ইনভেস্টমেন্ট স্কিম যেখানে একটি নিদিষ্ট সময়ের জন্য টাকা রেখে ভবিষ্যতে সেই টাকা সুদে-আসলে তুলে নিতে পারি।

কিন্তু এই ধারণা সম্পূর্ণ ভূল, মনে রাখবেন ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা এমন কোন মাধ্যম নয়, যেখানে টাকা জমা রেখে নিদিষ্ট সময় পর সেই টাকা সুদেআসলে তুলে নিতে পারবেন।


তাই এই আর্টিকেলে আলোচনা করবো ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা কি? কত প্রকার ও কি কি?  বাংলাদেশের ইন্সুরেন্স ( Insurance) বা বীমা কোম্পানি সমূহের তালিকা।




ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা কি? 

ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা হচ্ছে ভবিষ্যতের সম্ভাব্য ক্ষতি থেকে নিজেকে রক্ষা করার জন্য এটি একটি প্রতিষ্ঠানকে একমুঠো অর্থ প্রদানের মতো। যার বিনিময়ে আপনি ক্ষতির সময় সেই প্রতিষ্ঠান থেকে সাহায্য পেতে পারেন।

এইভাবে, যখন কিছু দুর্ভাগ্যের ঘটনা ঘটে, তখন বীমাকারী আপনাকে পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে সাহায্য করে।


আগেই বলেছি এটা  এমন কোন মাধ্যম নয়, যেখানে টাকা জমা রেখে নিদিষ্ট সময় পর সেই টাকা সুদেআসলে তুলে নিতে পারবেন যেমনটা Fixed deposit, Saving scheme, mutual fund এর ক্ষেত্রে হয়ে থাকে। 


একানেই সাধারণ লোকেরা ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা ও Investment Scheme এর মাঝে পার্থক্য বুঝতে ভূল করে। 

মনে রাখবেন ইন্সুরেন্স বা বীমা কখনোই আপনাকে  ডিরেক্টর অর্থ প্রদান করবেনা।


বীমা বা ইন্সুরেন্স এর মাধ্যমে আপনি ভবিষ্যতে হতে পারা  বিভিন্ন প্রকার ক্ষতির বিনিময়ে তাদের কাছে থেকে সাহায্যে ( টাকা) পেতে পারেন।

তাই বীমার ( Insurance)  মাধ্যমে সরাসরি ভাবে টাকা না পাওয়া গেলেও আপনার ভবিষ্যতে হতে পারা  বিভিন্ন প্রকার ক্ষতির বিনিময়ে তাদের ( Insurance company)  কাছে থেকে সাহায্যে ( টাকা) পেতে পারেন।



উদাহরণঃ মনে করুন আপনি যেকোন একটি হেলথ ইন্সুরেন্স কোম্পানী ( Health insurance company)  থেকে নিজের মানে একটি  স্বাস্থ বীমা ( Health insurance) করলেন এবং সেই বীমা কম্পানির নিয়ম অনুযায়ী প্রতি বছর আপনি তাদের ৫ হাজার করে টাকা প্রিমিয়াম হিসাবে দিলেন।


কিন্তু প্রত্যোক বছরে দেওয়া সেই ৫০০০ হাজার টাকার প্রিমিয়ামের বদলে কিছুই আপনাকে দেওয়া হবেনা।


তবে, যদি ভবিষ্যতে আপনার স্বাস্থ ঝুঁকি জনিত কোন সমস্যা হয় বা আপনাকে হাস্পাতালে ভর্তি করাতে হয় তখন ওই বীমা কম্পানিই আপনার সব চিকিৎসা খরচ বহন করবে।


আশা করি, ইন্সুরেন্স (insurance)  বা বীমা কি সেটা বুঝতে পেরেছেন। 





ইন্সুরেন্স (Insurance)  বা বীমা কত প্রকারঃ

ইন্সুরেন্স (Insurance) বা বীমা অনেক প্রকার হতে পারে তবে সাধারণ বীমা ২ প্রকার হয়ে থাকেঃ

  • টার্ম বীমা ( Term Insurance)  বা লাইফ ইন্সুরেন্স ( Life Insurance) 


  • সাধারণ বীমা ( General Insurance)  বা নন-লাইফ ইন্সুরেন্স  ( None-Life Insurance) 

 নিচের চিত্রে বীমার প্রকারভেদ দেখানো হলো  -

ইন্সুরেন্স ( Insurance)  বা বীমা কি? বাংলাদেশের ইন্সুরেন্স কোম্পানী সমূহের তালিকা।

সাধারণ বীমাকে ( General Insurance)  আবার অনেকগুলো ভাগে ভাগ করা হয়ে থাকে, যেমনঃ

  • Home Insurance
  • Health Insurance
  • Vehicles Insurance
  • Travel Insurance
  • Corporate Insurance
  • Fire Insurance
  • Property Insurance
  • Accidental Insurance
জীবন বীমা (Life Insurance):
জীবন বীমা হল মানুষের মৃত্যুজনিত ঝুঁকি, ক্ষতি, বিপদ হস্তান্তরে বা এড়ানোর একটি কৌশল।

যেখানে একজন ব্যাক্তি কোন বীমা কম্পানিকে ( Insurance company)  নিয়মিত প্রিমিয়াম দেয় যা ভবিষ্যতে কোন নিদিষ্ট সময় বা সেই ব্যাক্তির মৃত্যর পর তার পরিবার একটি নিদিষ্ট পরিমান টাকা পাওয়ার উদ্দেশ্য। 

জীবন বীমার (Life Insurance) প্রয়োজনীয়তাঃ  আপনি যদি আপনার পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যাক্তি হয়ে থাকেন এবং আপনার পরিবার যদি শুধু আপনার আয়ের উপর নির্ভশীল হয়ে থাকে তবে একটি লাইফ ইন্সুরেন্স(Life Insurance) করে রাখাটাই আপনার পরিবারের জন্য জুরুরি। 

লাইফ ইন্সুরেন্স(Life Insurance) এমন একটি বীমা যেটি যার নামে করা হয়ে থাকবে সেই ব্যাক্তির মৃত্যোর পর একটি নিদিষ্ট পরিমান অর্থ বা টাকা তার পরিবারের মনোনিত ( Nominee) ব্যাক্তিকে দেওয়া হয়ে থাকে।

কত টাকা দেওয়া হবে সেটি ওই ব্যাক্তি যখন বীমা করবে তখনি নির্ধারন করে দেওয়া হয়।

আপনি কি পরিমান টাকা মৃত্যর পর মনোনীত ব্যাক্তিকে দিতে যান তার উপর ভিত্তি করেই প্রিমিয়াম নির্ধারন করা হয়। আপনি যত বেশি টাকা দিতে চাইবেন তত বেশি প্রিমিয়াম জমা দিতে হবে আপনাকে।

তাহলে জীবন বীমা কি এবং কেন প্রয়োজন সেটি অবশ্যই বুঝতে পেরেছেন। 


সাধারণ বীমা (General Insurance): সাধারণ বীমাকে  None Life insurance ও বলা যেতে পারে।

মানে হয়ে, যে কোন একটি বীমা যেটি আপনার জীবনের সাথে বা লাইফ ইন্সুরেন্স(Life Insurance) এর সাথে জরিত না সেগুলো সাধারণ বীমার অন্তর্ভুক্ত। 

গৃহ বীমা ( Home Insurance) : এটি পলিসির সুযোগের উপর নির্ভর করে ঘর এবং ভিতরের বিষয়বস্তু কভার করে। এটি প্রাকৃতিক এবং মনুষ্যসৃষ্ট দুর্যোগ থেকে ঘরকে সুরক্ষিত রাখে।

স্বাস্থ বীমা (Health Insurance) : এই বীমা আপনার ভবিষ্যতে অসুস্থকালীন সময় হাসপাতালের সম্পূর্ণ খরচ বহন করবে।

যার নামে স্বাস্থ বীমা করা হয়েছে সে যদি হাসপাতালে ভর্তি হয় তবে সেই খরচগুলো  হেলথ ইন্সুইরেন্স কম্পানি বহন করবে।

তবে মনে রাখা ভালো আপনি যে পরিমান প্রমিয়াম জমা দিয়েছিলেন স্বাস্থ বীমা ( Health Insurance) আপনাকে সেই পরিমান টাকা দিয়ে সাহায্য করবে।


মোটর বীমা (Vehicles Insurance) : এটি বিভিন্ন পরিস্থিতিতে একটি যানবাহনের  সাথে সম্পর্কিত ক্ষতি এবং দায় কভার করে। 

এটি গাড়ির ক্ষতির বিরুদ্ধে সুরক্ষা প্রদান করে এবং গাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে আইন দ্বারা বর্ণিত তৃতীয় পক্ষের দায়বদ্ধতা প্রদণ করে। 

ভ্রমণ বীমা(Travel Insurance): এটি আপনার ভ্রমণের সময় জরুরী অবস্থা বা ক্ষতি থেকে আপনাকে সুরক্ষা প্রদান করে।
 

বানিজ্যিক বীমা (Corporate Insurance): এটি নির্মাণ, স্বয়ংচালিত, খাদ্য, শক্তি, প্রযুক্তি ইত্যাদি শিল্পের সমস্ত ক্ষেত্রে সমস্যার সমাধান প্রদান করে।


অগ্নি বীমা(Fire Insurance): অগ্নি বীমা হচ্ছে এমন একটি চুক্তি যেখানে একপক্ষ প্রতিদানের বিনিময়ে অপর পক্ষের একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির ঝুঁকি বহন করতে সম্মত হয় যা অগ্নি দ্বারা কোন কিছুর ক্ষতি বা ধ্বংসকে বোঝায়।

অগ্নিকাণ্ডের দ্বারা সৃষ্ট বা বিনষ্টের ক্ষতি পূরণ করা অগ্নিবীমার অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্য। অগ্নিকাণ্ডে বিমাগ্রহীতার বীমাকৃত সম্পত্তি ক্ষতিগ্রস্ত হলে বীমাকারীর উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দিয়ে থাকে। 

সম্পত্তি বীমা (Property Insurance): এটি আগুন, চুরি, বিস্ফোরণ, দাঙ্গা, বন্যা, ভূমিকম্প ইত্যাদির মতো ঝুঁকির বিরুদ্ধে একটি বাড়ি, দোকান, কারখানা, ব্যবসা, যন্ত্রপাতি, স্টক এবং ব্যক্তিগত জিনিসপত্রের মতো সম্পদগুলিকে সুরক্ষা এবং সুরক্ষিত করার উপায় প্রদান করে।


দুর্ঘটনা বীমা(Accidental Insurance): দুর্ঘটনা যে কোন সময় যে কোন জায়গায় আঘাত হানতে পারে।

দুর্ঘটনা বীমার গ্রাহক সামর্থ অনুযায়ী একের অধিক পলিসি ক্রয় করতে পারে। দুর্ঘটনাজনিত কারণে বীমাগ্রহীতার মৃত্যু ঘটলে প্রত্যেক বীমাকারী স্বতন্ত্রভাবে পলিসিতে বর্ণিত বীমামূল্যের শতকরা একশত ভাগ টাকা পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য থাকবে।




বাংলাদেশের ইন্সুইরেন্স কোম্পানী সমূহের তালিকাঃ
বাংলাদেশে বর্তমানে মোট ৭৯টি বীমা কোম্পানি বীমা ( Insurance company)  সেবা দিচ্ছে যার মধ্যে ৩৩টি লাইফ বীমাকারী কোম্পানি (Life Insurance company)  এবং ৪৬টি নন-লাইফ বীমাকারী(None life Insurance company)  কোম্পানি। লাইফ বীমাকারী কোম্পানির ( Life Insurance company) মধ্যে ১টি সরকারী এবং ৩২টি বেসরকারি মালিকানাধীন। অন্যদিকে নন-লাইফ বীমাকারী কোম্পানির(None Life Insurance company) মধ্যে ১টি সরকারী এবং ৪৫টি বেসরকারি মালিকানাধীন।

 লাইফ বীমাকারী কোম্পানি(Life Insurance company) :

নন-লাইফ বীমাকারী কোম্পানি ( None Life Insurance company) :




বীমা করলে কি কি সুবিধা পাওয়া যায়?

বীমা করার সুবিধাবলী:


  • জীবনের ও সম্পদের নিরাপত্তা দেয়।
  • মূলধন সৃষ্টি করে।
  • বৃদ্ধ বয়সের এবং আপদকালীন সম্বল।
  • মানসিক প্রশান্তি দেয়।
  • ব্যবসায়ে অর্থ যোগান দেয়।
  • মুদ্রা স্ফীতি হ্রাস করে।
  • সামাজিক সম্পত্তির নিরাপত্তা বিধান করে।






বীমা করার ধাপ সমূহ কী কী?

করার ধাপ সমূহ হলো:


  • বীমা প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় প্রতিনিধি অথবা ওয়েব সাইট হতে গ্রাহকের বিভিন্ন পরিকল্প সম্পর্কে অবহিত হওয়া এবং বিভিন্ন পরিকল্প পর্যালোচনা করতঃ পছন্দ মত পরিকল্প নিবার্চন করা।
  • বীমা গ্রাহকের পছন্দমত পরিকল্প গ্রহণের নিমিত্ত বীমা প্রতিষ্ঠানের নির্ধারিত ফরমে আবেদন করা।
  • বীমাগ্রাহকের আবেদন ও দাখিলকৃত আনুসাংগিক কাগজপত্র পর্যালোচনা করতঃ বীমাকারী প্রতিষ্ঠানের অবলিখন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা।
  • বীমা প্রতিষ্ঠানের সিদ্ধান্ত প্রাপ্তির পর বীমা গ্রাহক কর্তৃক প্রিমিয়াম পরিশোধ করা।
  • বীমা গ্রাহক কর্তৃক প্রিমিয়াম পরিশোধের পর বীমা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক এফ.পি.আর এর মাধ্যমে বীমা চুক্তি চূড়ান্তভাবে সম্পাদন করা।
  • বীমা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক এফ.পি.আর সম্পাদনের পর গ্রাহক কর্তৃক বীমা দলিল সংগ্রহ করা।




বীমা প্রিমিয়াম কি?
একটি বীমা প্রিমিয়াম হল একটি পরিমাণ যা বীমাকৃত ব্যক্তিকে পলিসি কেনার জন্য বীমা কোম্পানিকে পর্যায়ক্রমে পরিশোধ করতে হয়।

আপনি যখন একটি বীমা পলিসি ক্রয় করেন, তখন ঝুঁকি কোম্পানির কাছে স্থানান্তরিত হয়। তাই, কোম্পানি একটি ফি নেয়, যা একটি বীমা প্রিমিয়াম হিসাবে পরিচিত।


সুখবর! সুখবর! সুখবর


এইচএসসি শর্ট সিলেবাসের সর্বোচ্চ গোছানো প্রস্তুতি নিশ্চিতে আজই ভর্তি হও ।


https://10ms.io/swU6RV


HSC 2023 ব্যাচের পরীক্ষার্থী বন্ধুদের জন্য প্রণীত হয়েছে নতুন শর্ট সিলেবাস। আর এই শর্ট সিলেবাসের সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিশ্চিত করতে তোমাদের জন্য টেন মিনিট স্কুল নিয়ে এলো 'HSC 2023 Short Syllabus Crash Course।' 🔥

কোর্সে তোমার জন্য থাকছেঃ

✅ ৮ টি বিষয় 

✅ ৪০০ টি লাইভ ক্লাস

✅ ৪০০ টি লেকচার শিট

✅ ৮ টি মডেল টেস্ট

✅ ৮ টি সলভ শিট

✅ ৮টি সলভ ক্লাস


তো আর দেরি কিসের এখনি Inroll করুন। কোর্স লিংকঃ  https://10ms.io/swU6RV

Post a Comment

Previous Post Next Post