Facebook SDK

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মহাকাশযান পারসিভেয়ারেন্স-এর রোবট সফলভাবে মঙ্গল গ্রহের বুকে নামার পর সেখান থেকে ছবি পাঠাতে শুরু করেছে।

গ্রহের বিষুব অঞ্চল, যার নাম জেযেরো, তার কাছে গভীর এক গহ্বরে এই রোবটকে নামানো হয়েছে।

নভোযানটি মঙ্গলের মাটি স্পর্শ করার মুহূর্তে উল্লাসে ফেটে পড়েন ক্যালিফোর্নিয়ায় নাসার মিশন কন্ট্রোলের প্রকৌশলীরা।

ছয় চাকার এই রোবটযান আগামী দু'বছর মঙ্গল গ্রহ থেকে নমুনা সংগ্রহের কাজ করবে। প্রাচীন হ্রদ এলাকার মাটিপাথরের মধ্যে খনন চালিয়ে এটি অতীত অণুজীবের অস্তিত্ব সন্ধানের কাজ করবে।

ধারণা করা হয় জেযেরোয় কয়েকশো' কোটি বছর আগে বিশাল একটি হ্রদ ছিল। সেই হ্রদে ছিল প্রচুর পানি, এবং খুব সম্ভবত সেখানে প্রাণের অস্তিত্বও ছিল।

পারসিভেয়ারেন্সের রোবটযানটি প্রথম যে দুটি ছবি পৃথিবীতে পাঠিয়েছে, সে দুটি তোলা হয়েছে দুর্বল শক্তির প্রকৌশলী ক্যামেরা দিয়ে। ক্যামেরার লেন্সে ধুলার আস্তরণের মধ্যে দিয়ে পারসিভেয়ারেন্সর রোভার অর্থাৎ ওই রোবটযানের সামনে ও পেছনে সমতল ক্ষেত্র দেখা যাচ্ছে।

নাসার বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, রোবটযানটি জেযেরোর ব-দ্বীপের মত চেহারার একটি অংশের দুই কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে অবতরণ করেছে। এই এলাকাতেই পারসিভেয়ারেন্স তার সন্ধান কাজ চালাবে।

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

বেশ কয়েকদিন আগে নাসা Perseverance নামক একটি রোভার, দীর্ঘ সাত মাস যাত্রা করার পর মঙ্গলের বুকে অবতরণ করে, এর আগে আরো কয়েকটি রোভার পাঠানো হয়েছিল মঙ্গলের বুকে কিন্তু সেগুলো অতটা ক্ষমতাশালী ছিল না,কিন্তু Perseverance এই রোবটটি অনেক ক্ষমতাশালী এবং মঙ্গলের বুকে হেঁটে বেড়ায়, এই রোবটটি মঙ্গলের বুকের মাটি থেকে নমুনা সংগ্রহ করে আবার পৃথিবীতে সেই নমুনা পাঠাবে এবং সেই নমুনা বিশ্লেষণ করে নাসার বিজ্ঞানীরা আরও বেশি তথ্য জানতে পারবে মঙ্গল গ্রহ সম্পর্কে।

  • রোবটটির থ্রিডি ভিউ দেখতে এই লিংক ক্লক করুনঃSpacecraft Rover 3D

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ভিডিও ফুটেজ এবং কয়েক হাজার ছবি পাঠিয়েছে Perseverance এবং মঙ্গল গ্রহ সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য আমাদেরকে দেয়,তার মধ্যে একটি হলো মঙ্গল গ্রহে কয়েকশো বছর পূর্বে মঙ্গলে পানি ছিল এবং সেগুলো মঙ্গল গ্রহের বুকে জমা রয়েছে কিন্তু সেগুলো মাটির সাথে মিশে আছে যেগুলো মঙ্গলের ভূপৃষ্ঠে দেখা যায় না। তবে মঙ্গল গ্রহে কোন প্রাণের অস্তিত্ব এখনো খুঁজে পাওয়া যায়নি, কারণ প্রাণের অস্তিত্ব খুঁজে পেতে হলে অবশ্যই সেখানে আগে পানির সন্ধান পেতে, হবে কারণ পানি মানেই জীবন। মঙ্গল গ্রহের একটি প্যারানোমা ভিডিও পাঠিয়েছে Perseverance রোভার যেটা আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি, আপনারা দেখে নিতে পারেন।



এছাড়াও এর Perseverance আরো অনেক ছবি পাঠিয়েছে যেগুলোর কয়েকটি আপনাদেরকে দিলাম যাতে আপনারা পৃথিবীতে বসেই পৃথিবী থেকে প্রায় ২৮ কোটি কিলোমিটার দূরের কোন গ্রহকে দেখতে পারেন। আমি বলব এটা আসলে অনেক বড় একটি অ্যাচিভম্যান্ট নাসার জন্য।

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.

মঙ্গল গ্রহের আসল ছবি এবং ভিডিও পাঠালো নাসা থেকে মঙ্গলে পাঠানো রোভার পারসিভিয়ারেন্স।NASA 2020 MISSION PERSEVERANCE ROVER.


ছবিগুলো নাসর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহিত। 






Post a Comment

Previous Post Next Post