Be a Blogger! Write your articles.

Search In blog

Most Important ৫টি YouTube Ranking ফ্যাক্টর,যা সকল YouTuber দের জানা উচিৎ।


Most Important  ৫টি YouTube Ranking ফ্যাক্টর,যা সকল YouTuber দের জানা উচিৎ।
Most Important  ৫টি YouTube Ranking ফ্যাক্টর,যা সকল YouTuber দের জানা উচিৎ।

আমার মতো নির্ভোধ ও কিছু আছে যারা সারাদিন শুধু অনলাইনেই পড়ে থাকে কিন্তু অনেকে জানেনা এই সময়টুকু কাজে লাগিয়ে ভালো একটা এমাউন্ট আপনি উপার্জন করা যায়।অনলাইনে আয়ের অনেক মাধ্যম রয়েছে নিচ থেকে থেকে নিতে পারেন হইতো অনলাইন আয়ের এই মাধ্যম গুলোই আপনার জীবন বদলে দিতে পারে।


মূল কথায় আশা যাক,এর আগে আমি ইউটিউব নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি তাই এখন আর ওইসব নিয়ে বলছিনা আজকের আলোচনার বিষয়: ৫টি YouTube Ranking ফ্যাক্টর।


আমাদের দেশে বহু নতুন ইউটিউবার  আছেন, তাদের প্রায় সকলেই শুরুতে হোছট খেয়ে যায়, কিন্তু কেন রে ভাই?  

বিনা বাতাসে গাছের পাতা নড়ে না। তাই এই হোচট খাওয়াতে ও কিছু ভুল করে থাকে।

এখন, আপনার প্রশ্ন; আপনি কি তাহলে একেবারে ধোয়া তুলসি পাতা নাকি?
 এক সময় আমি ও YouTube এ জ্ঞানশুন্য ছিলাম। তবে, এখন টেক রিলেটেড ভিডিও তৈরী করে এখন আগের তুলনায় ভালো ই জানি।

যা জানি তাই, আজকের আর্টিকেলের বিষয়।

যাদের ইউটিউব চ্যানেল নেই তারা নিচের টিউটোরিয়াল টি দেখুনঃ

Most Important 5 টি Youtube Ranking ফেক্টরঃ

1.Channel keyword :

বর্তমানে প্রায় সবগুলো ইউটিউব চ্যানেলে  কোন একটা নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর নির্ভর করে তৈরি করা হয়। যতগুলো অগোছালো চ্যানেল আছে দেখবেন, একটাও ভালো রেংক করে না। সকলের দরজায় আপনার চ্যানেল কে পৌছাতে সাহায্য করবে এই চ্যানেল keyword. এটি মনের মতো করে সেট করুন আপনার চ্যানেলের সাথে সাদৃশ্য রেখে।


এটি সেট করতে পারবেন সেটিংস থেকে চ্যানেল descriptions এ গিয়ে।


ভালো মানের কিওয়ার্ড কোথায় পাবেন তা জানতে পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

2.Video keyword
বতর্মান এ ততগুলো জনপ্রিয় চ্যানেল আছে কোন চ্যানেলে কিন্তু তাদের নামের জন্য জনপ্রিয়তা লাভ করে নাই বরং তাদের কন্টেন্টের জন্য আজকে তারা জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান করতেছে।


মনে করুন, কেউ কোন একটা বিষয় ইউটিউবে সার্চ করলো যা সম্পর্কে আপনার চ্যানেল এ আগে থেকেই ভিডিও আছে। কিন্তু, দুর্ভাগ্যজনক হলেও এটাই সত্যি যে সার্চ রেজাল্টে আপনার তৈরি করা ভিডিও শো করল না।


তখন, আপনার কাছে কেমন লাগবে তা খুব সহজে অনুধাবন যোগ্য।


আর এরকম টা ঘটার কারন হলো, ভিডিও keyword না থাকা। তাই প্রত্যাকটি ভিডিও তে ভালো মানের কি ওয়ার্ড ব্যবহার করবেন।


কোথায় কোথায় ব্যবহার করবেন কিওয়ার্ডঃ

  • video descriptions
  • video title
  •  video content
  •  video tag
3.Video Title:

টাইটেল কি তা আমরা সবাই জানি,অনেক সময় 
দেখা যায় ভিডিও টাইটেলে লেখা আছে " Top 10 website in Bangladesh " কিন্তু ভিডিওতে দেখলো  অন্যকিছু মানে দেখালো "কলা" দিল "আম"। 



ভিডিও টাইটেল দিবেন-একটি থামনেল দিবেন আর একটি ভিডিওর ভিতর রাখবেন অন্য একটি এমনটা কখনো করার চেষ্টা করবেন না।


এমনটা কখনো করতে যাইয়েন ভাই!  সব হারাবেন কারন এতে হয়তো সাময়িক সময়ের জন্য কিছু Watchtime পাবেন কিন্তু কেও Subscriber করবেনা উল্টা ধোকা খেয়ে Unsubscribe/Unlike করবে।

ভিডিও সাথে সবসময় টাইটেলের মিল রাখার চেষ্টা করবেন।

ভিডিও টাইটেল 5 শব্দের অধিক হওয়া ঠিক না। কারণ ইউটিউবে তো আর ডিসক্রিপশন আকারে কিছু সার্চ করে না, তবে হলেও বেশ একটা অসুবিধা নাই।

4.Video descriptions

টাইটেল এর মত ভিডিও ডিস্ক্রিপশন অনেক কাজে দেয়। কিন্তু আমাদের দেশের নব ইউটিউবার যারা আছে তারা এসকল ব্যাপারে অজ্ঞ এখনো।

অবশ্যই vedio Description ব্যাবহার করবেন কারন এতে ভিজিটরা আপনার ভিডিও সম্পর্কে  ধারনা পায়।

Vedio Description 
ব্যাবহার করার কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপ্সঃ

  •  ভিডিও ডিসক্রিপশন এ  উপযুক্ত কিবোর্ড ব্যবহার করেন।
  •  descriptions আড়াইশো শব্দের বেশি না হওয়াই উত্তম।
  •  চেষ্টা করুন প্রথম 25 শব্দের ভিতর কিওয়ার্ডগুলো রাখতে এতে সার্চ ইঞ্জিন আপনার ভিডিওকে গুরুত্ব দেবে অধিকমাত্রায়। 
  • ভিডিওতে কিছু লিংক রাখুন যেমনঃআপনার অন্য কোন ভিডিও এর লিঙ্ক অথবা আপনার বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার লিঙ্ক ও দিতে পারেন।
5.vedio Tag
সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কিন্তু একটি ভিডিওর tag এর উপরে ডিপেন্ড করে  সার্চ ইঞ্জিন আপনার ভিডিওগুলো কে অন্যদের হোমপেজে শো করাবে।


 তাই চেষ্টা করবেন উন্নত মানের ট্যাগ গুলো ভিডিওতে যুক্ত রাখার। মনে রাখবেন আপনার প্রথম দিককার সফলতা কিন্তু আপনার ভিডিও ট্যাগের উপরে নির্ভর করে।
 
সবশেষে যেসব বিষয়গুলো লক্ষ রাখবেনঃ
  • হাই কোয়ালিটি সম্পন্ন ভিডিও আপলোড করুন।
  •  মনে রাখবেন, এই যুগে কিন্তু সাদাকালো টিভি নেই। তাই চেষ্টা করবেন একটা Eye catching thumbnail makeকরতে।
  •  কখনো ইউটিউবে ইনকাম এর আশা নিয়ে ভিডিও তৈরি করবেন না বরং আপনার মুখ্য উদ্দেশ্য থাকবে, অন্যকে সাহায্য করা।
  • সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও গুলো শেয়ার করে ভালো একটা পজিশন তৈরী করা সম্ভব।


আমাদের শেষ কথাঃ সাবস্ক্রাইব পাওয়ার জন্য কোন জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলের কমেন্টে গিয়ে অথবা ফেসবুকে গিয়ে কাউকে বলবেন না যে, প্লিজ আমার চ্যানেলটা সাবস্ক্রাইব করুন।

এরকম টা করাকে YouTube spam হিসেবে দেখে।


যাইহোক এছিলো আজকের আলোচনার বিষয়। এ বিষয় গুলো ফলো করে যদি আপনি ইউটিউবিং করেন তাহলে আর কেউ আপনার সফলতা আটকাতে পারবেনা।


 



Report Print
Share Via:

About Author


0 Response to "Most Important ৫টি YouTube Ranking ফ্যাক্টর,যা সকল YouTuber দের জানা উচিৎ।"

Post a comment

Total Pageviews